দৌলতখানে জমিজমার বিরোধে শিক্ষকের ওপর হামলা নারীসহ আহত ৫

মোঃ ছিদ্দিক ভোলা প্রতিনিধি

ভোলার দৌলতখানে জমিজমার বিরোধে প্রতিপক্ষ হামলা চালিয়ে এক শিক্ষক ও তার মাকেসহ পাঁচজনকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। গুরুতর আহত শিক্ষক মো: রিপনকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার চরখলিফা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের গজনবী বেপারি বাড়িতে ঘটনাটি ঘটে।
আহত রিপনের মা অহিদা বেগম ঘটনা সম্পর্কে বলেন, আমাদের ভোগদখলীয় ১৬ শতক জমির আংশিক প্রতিপক্ষ মফিজল গং অবৈধভাবে দাবি করে আসছে। বুধবার দুপুরে তারা ওই জমি জবরদখল করতে এলে আমার মাদরাসা পড়ুয়া ছেলে আবদুর রহমান বাধা দেয়। এ সময় মৃত জেবল হকের ছেলে মফিজলের নেতৃত্বে তার স্ত্রী নুরজাহান, ছেলে রাসেল, ইব্রাহিম, ইয়াছিন, পুত্রবধু ছকিনা ও মানিকজান সাবল ও লাঠি দিয়ে আমার ছেলে জয়নাল আবেদীন ল্যাবোরেটরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো: রিপন, মেজো ছেলে মাদরাসা ছাত্র আবদুর রহমান ও আমাকে এলাপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। মফিজলের সাবলের আঘাতে আমার ছেলে রিপন ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। তাকে মুমুর্ষু অবস্থায় ভোলা হাসপাতলে পাঠানো হয়েছে। অপর দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মফিজলের ছেলে ইয়াছিন অভিযোগ অস্বীকার করেন।
এ ব্যাপারে দৌলতখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বজলার রহমান বলেন, অভিযোগ তদন্তসাপেক্ষে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top