এক অঞ্চল, এক পথ’ উদ্যোগ অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর জন্য বাস্তব কল্যাণ বয়ে এনেছে: ছিন কাং

মার্চ ৭: ‘এক অঞ্চল, এক পথ’ চীনের একটি বৈশ্বিক উদ্যোগ। এখন পর্যন্ত বিশ্বের তিন-চতুর্থাংশের বেশি দেশ এবং ৩২টি আন্তর্জাতিক সংস্থা এতে সামিল হয়েছে। এ উদ্যোগ অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দেশের জীবিকা উন্নত করেছে এবং তাদের জন্য বাস্তব কল্যাণ বয়ে এনেছে। আজ (মঙ্গলবার) সকালে চীনের চতুর্দশ জাতীয় গণকংগ্রেসের প্রথম অধিবেশনের এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিন কাং।
তিনি বলেন, প্রস্তাব উত্থাপনের পর বিগত দশ বছরে, এ উদ্যোগে ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের পুঁজি বিনিয়োগ হয়েছে। এতে ৩ সহশ্রাধিক সহযোগিতামূলক প্রকল্প সৃষ্টি হয়। আর এসব প্রকল্প অংশগ্রহণকারী দেশগুলোতে ৪ লাখ ২০ সহস্রাধিক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। তা ছাড়া, এ উদ্যোগের ফলে প্রায় ৪ কোটি মানুষ দারিদ্র্যমুক্ত হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, তথাকথিত ‘ঋণের ফাঁদ’-এর দায় কোনো অবস্থাতেই চীনের ওপর চাপানো যাবে না। পরিসংখ্যান অনুসারে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর ঋণের ৮০ শতাংশেরও বেশী বিভিন্ন বহুপাক্ষিক আর্থিক সংস্থা থেকে আসা। উন্নয়নশীল দেশগুলোর ওপর ঋণের চাপের প্রধান উত্স এসব বহুপাক্ষিক সংস্থা।

লেখিকা: ওয়াং হাইমান (ঊর্মি)
সাংবাদিক, বাংলা বিভাগ
চায়না মিডিয়া গ্রুপ, বেইজিং চীন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top