দুমকিতে আগুনে পুড়ে ছাই ৯ টি দোকান!

মোঃ রিয়াজুল ইসলাম, দুমকি প্রতিনিধি

পটুয়াখালি জেলার দুমকি উপজেলার মুরাদিয়ায় বোর্ড অফিস বাজারের ব্রিজ সংলগ্ন দক্ষিণ পার্শ্বে শনিবার (১৩/১১/২০২১) দিবাগত রাত ১২টার পরে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ৯ টি দোকান।

৯৯৯ এর মাধ্যমে স্থানীয় জনতা আগুনের খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের বাউফল,বাকেরগঞ্জ ও পটুয়াখালী স্টেশনের ৩ টি ইউনিট ও স্থানীয় লোকজন এর সহায়তায় প্রায় ২ ঘন্টা পর নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানান,” আগুনের সূত্রপাত প্রাথমিকভাবে বলা যাচ্ছে না। ”

দোকান গুলো ছিল দুলাল হাওলাদার এর পান,চট ও জাল বিক্রি করতেন,শহিদুল ইসলাম শিকদার এর মুদি দোকান, মিন্টু দাস এর মুদি দোকান, নূর ইসলাম চৌকিদার এর খুচরা খাবারের দোকান, আলতাফ চাকলাদার এর চায়ের দোকান, জসিম মৃধা এর হোটেল, নাইম এর মোবাইল সার্ভিসিং দোকান,জলিল এর হোটেল ও অতুল পাইক এর পানের দোকান।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে পরদিন সকাল ১০ঃ৩০ মিনিটে দুমকি উপজেলা আওয়ামী লীগ এর নেতৃবৃন্দ ছুটে এসেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগ এর সহ সভাপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম সালাম জানান, আগুনের খবর পেয়ে ছুটে এসেছি।আসলেই অত্যন্ত মর্মাহত হয়েছি। এতে আনুমানিকতাদের ক্ষতির পরিমান ১০ -১২ লাখ টাকার মতো হবে। তিনি যথাযথ করতে দৃষ্টি আকর্ষণ করে আরও বলেন,আগুনে পুড়ে যাওয়া দোকানদারেরা যাতে আবারও দোকান পরিচালনা করেতে পারে তার জন্য তাদের সহায়তা দরকার।

স্থানীয় লোকজন এর সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে মুরাদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর চাকলাদার বলেন, দুমকিতে যদি একটি ফায়ার সার্ভিস সেন্টার থাকত তবে লক্ষ লক্ষ টাকার মালামাল এর ক্ষতি হতো না।

নূর ইসলাম চৌকিদার বলেন, “প্রায় দোকানদারই উদ্দিপন,বুরো,টিএমএস এস সহ বিভিন্ন এনজিও থেকে লোন নিয়ে দোকান করতাম আমরা।এখন কিভাবে যে কিস্তি চালাবো? আমাদের যদি কেউ একটু সহযোগিতা করতো!”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top