হ্যানয়ে নোয়েন ফু চোং-ওয়াং ই বৈঠক অনুষ্ঠিত

ডিসেম্বর ২: ভিয়েতনামের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নোয়েন ফু চোং গতকাল (শুক্রবার) হ্যানয়ে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিসি’র) কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই’র সঙ্গে বৈঠক করেছেন।
ওয়াং ই প্রথমেই সাধারণ সম্পাদক নোয়েন ফু চোংকে প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের উষ্ণ শুভেচ্ছা জানান। ওয়াং ই বলেন, ভিয়েতনামের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নোয়েন ফু চোংয়ের নেতৃত্বে ভিয়েতনামের রাজনৈতিক ও সামাজিক সম্প্রীতি ও স্থিতিশীলতা এসেছে, অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং আন্তর্জাতিক অবস্থার ক্রমাগত উন্নতি হয়েছে। চীন ও ভিয়েতনামের দুই শীর্ষনেতা রাজনৈতিক পারস্পরিক আস্থা এবং গভীর ভ্রাতৃত্বের সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করেছেন, দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ককে পরিচালনা করেছেন এবং গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত দিকনির্দেশনা প্রদান করেছেন।

ওয়াং ই বলেন, সমমন এবং অভিন্ন ভবিষ্যৎ চীন-ভিয়েতনাম সম্পর্কের সবচেয়ে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য। চীন প্রশংসা করে যে, ভিয়েতনাম সবসময় চীনের সঙ্গে সম্পর্ককে কৌশলগত বাছাই এবং ভিয়েতনামের কূটনীতিতে শীর্ষ অগ্রাধিকার হিসাবে বিবেচনা করে। চীন প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে কূটনীতিতে ভিয়েতনামের সাথে সম্পর্ককে অগ্রাধিকার হিসাবে বিবেচনা করে।
ওয়াং ই’র মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংকে তার আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান নোয়েন ফু চোং। তিনি বলেন, ভিয়েতনাম ও চীন পাহাড় ও নদী দ্বারা সংযুক্ত। ‘ভিয়েতনাম ও চীনের গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে, তারা কমরেড এবং ভাই’, যা বিশ্বে অনন্য। তৃতীয়বারের মতো ভিয়েতনামের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব গ্রহণের পর, প্রথম চীন সফরের কথা উল্লেখ করেন নোয়েন।
ভিয়েতনাম-চীন সম্পর্কের ক্রমাগত বিকাশ ভিয়েতনামের জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার সাথে পুরোপুরি সঙ্গতিপূর্ণ উল্লেখ করে নোয়েন বলেন, দু’পক্ষের যৌথ প্রচেষ্টার মাধ্যমে দু’দেশের মধ্যে ‘কমরেডশিপ, ভ্রাতৃত্ব’ ও বন্ধুত্ব আরও গভীর থেকে গভীরতর হবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

লেখিকা: ওয়াং হাইমান (ঊর্মি)
সাংবাদিক, বাংলা বিভাগ
চায়না মিডিয়া গ্রুপ, বেইজিং চীন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top