কালুরঘাট সেতুতে গড়িমসি,সুনজরে-গণ অনশন

মোহাম্মদ মাসুদ বিশেষ প্রতিনিধি।

চট্টগ্রাম কর্ণফুলীতে প্রস্তাবিত কালুরঘাট নতুন সেতু অবিলম্বে বাস্তবায়ন জাতীয় স্বার্থে জরুরি। সেতু নির্মাণে জনদুর্ভোগ লাগবে প্রতিকারে প্রতিবাদে চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরামে উদ্যোগে দ্রুত সমাধান ও বাস্বায়নে এক গণ-অনশন এর আয়োজন করেছে নগরীর আন্দরকিল্লা চত্বরে। কালুরঘাট নতুন সেতু নির্মাণে নিয়ে গড়িমসি ও দীর্ঘসূত্রিতা রহৎস্যজনকভাবে চলছে প্রায় দশ বছর যাবত।

আগামী ৯ নভেম্বর বুধবার দুপুর ২ টা হতে ৫ টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরামে উদ্যোগে এক গণ-অনশন এর আয়োজন করেছে নগরীর আন্দরকিল্লা চত্বরে। এই গণ-অনশনে দলমত নির্বিশেষে সকল সামাজিক, পেশাজীবী, রাজনৈতিক ও ক্রীড়া সংগঠনের প্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অংশ নিন এবং একাত্মতা প্রকাশ করুন ।

এই দাবীতে চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরাম, সেতু বাস্তবায়ন পরিষদ ও অন্যান্য সংগঠনগুলো দ্রুত বাস্তবায়নে দাবি, সমাধানে মানববন্ধন প্রতিবাদ আন্দোলন প্রয়োজন পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আরো গুরুত্ব দেওয়া ও যতাযত কর্তৃপক্ষের পদক্ষেপ ও সুনজর জরুরি প্রয়োজন।

সেই লক্ষে আমরা ইতিপূর্বে করেছি সংবাদ সম্মেলন ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি। বোয়ালখালী-পাঁচলাইশ-চান্দগাঁওয়ের সাবেক ও বর্তমান সাংসদ আপ্রাণ চেষ্টা করেছেন নি:সন্দেহে । সাংবাদিকরাও অনেক ভূমিকা পালন করেছেন।অথচ বিশাল এক পগ্মা সেতু, মধুমতি সেতু,শীতলক্ষ্যার তৃতীয় সেতু আরো শত শত প্রকল্প বর্তমান সরকারের সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য ও দৃঢ় নেতৃত্বে স্বল্প সময়ে হয়ে গেলো, কিন্তু এটি এখনও ডিজাইন- রিডিজাইন নিয়েই ঘুরপাক খাচ্ছে আর প্রকল্পের আনুমানিক ব্যয় কয়েকগুণ বেড়ে যাচ্ছে সময় যতই পার হচ্ছে ।এটি নিয়ে মনে হচ্ছে যেন জনগণের সাথে তামাশা চলছে।এ ব্যর্থতা রেল সেতু মন্ত্রনালয়ের । কালুরঘাট নতুন সেতু ছাড়া এতদিন চট্টগ্রাম-কক্সবাজার ট্রেন লাইন কতটুকু উপকার বয়ে আনবে ? এসব মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন উন্নত বাংলাদেশ গড়ার সাথে সাংঘর্ষিক বলা চলে।

জনগণ চুপচাপ সব মেনে নিতে পারেন না। এখন এটি হবে একটি জাতীয় দাবী,কারণ জাতীয় অর্থনীতির প্রাণ কেন্দ্র চট্টগ্রামের এই দাবীটি বাস্তবায়ন না হওয়া মানেই আমাদের অর্থনৈতিক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া।এসব প্রেক্ষাপটে, সব দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার করে এটি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি সকলের।

দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার করে এটি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি সকলের। আর কালুরঘাট নতুন সেতু নির্মাণ এখন থেকে হোক একটা জাতীয় দাবী। না হয় অনশনসহ সবরকমের ধারাবাহিক কার্যক্রমে জোড়ালো পদক্ষেপে সকলের সহায়তা প্রয়োজন। সেইসাথে চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরাম এক গণ-অনশন এর আয়োজন করেছে নগরীর আন্দরকিল্লা চত্বরে। এই গণ-অনশনে দলমত নির্বিশেষে সকল সামাজিক, পেশাজীবী, রাজনৈতিক ও ক্রীড়া সংগঠনের প্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের অংশ নিন এবং একাত্মতা প্রকাশ করুন।

গণঅনশনের নেতৃত্ব দিবেন,চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরামের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন,মহাসচিব মো:কামাল উদ্দিনসহ অন্যান্য নেতৃত্ববৃন্দ ও কর্মীরা।গন-অনশন সফলে দলে দলে যোগ দিয়ে সফল করুন।আমাদের প্রাণের দাবী কালুরঘাট সেতু অবিলম্বে বাস্তবায়ন জাতীয় স্বার্থে কর্ণফুলী নদীতে কালুরঘাট দ্বিতীয় সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত জরুরী ভিত্তিতে কার্যকর করার দাবীতে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top